LOADING

Type to search

চৌগাছার সেই বীর মুক্তিযোদ্ধা রওশন আলীর কাছে উপজেলার প্রকৌশলীর দুঃখ প্রকাশ

অন্যান্য

চৌগাছার সেই বীর মুক্তিযোদ্ধা রওশন আলীর কাছে উপজেলার প্রকৌশলীর দুঃখ প্রকাশ

Share

চৌগাছা (যশোর) প্রতিনিধি
চৌগাছার বীর মুক্তিযোদ্ধা রওশন আলীর কাছে দুঃখ প্রকাশ করেছেন চৌগাছা উপজেলা প্রকৌশলী আব্দুল মতিন।
বৃহস্পতিবার চৌগাছা উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা ঐক্য পরিষদ নেতৃবৃন্দের উপস্থিতিতে নিজের দপ্তরে এক সমঝোতা বৈঠকে তিনি মুক্তিযোদ্ধা রওশন আলীর নিকট দুঃখ প্রকাশ করেন।
এ বিষয়ে উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা ঐক্য পরিষদের আহবায়ক আব্দুস সালাম বলেন প্রথমেই চৌগাছা প্রেসক্লাবেরসাংবাদিকদের ধন্যবাদ জানাই। চৌগাছা প্রেসক্লাবের সাংবাদিকদের বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ প্রকাশের কারনেই আরও একবার দেশের সমস্ত বীর মুক্তিযোদ্ধারা সম্মানিত হলেন। তিনি বলেন উপজেলা প্রকৌশলী আব্দুল মতিন মুক্তিযোদ্ধাদের কাছে দুঃখ প্রকাশ করেছেন। এছাড়াও তিনি মুক্তিযোদ্ধা রওশনের বাড়ির রাস্তার সমস্যা সমাধানের আশ^াস দিয়েছেন। আমরা এতে সন্তুষ্ট।
উপজেলা প্রকৌশলী আব্দুল মতিন মোবাইল ফোনে জানান মুক্তিযোদ্ধা রওশন আলীর সাথে ভুল বোঝাবুঝির অবসান হয়েছে। তিনি আরো বলেন আসলে এই মহামারির কারনে আমি সকলের সাথে একটু দূরত্ব বজায় রেখেই কথা বলি। কিন্তু সেদিন তিনি আমার কথা বুঝতে পারেননি অথবা আমি তাকে বোঝাতে পারিনি। যে কারনেই হোক না কেনো জাতির এই বীর সন্তান কষ্ট পেয়েছেন, সে কারনে আমি লজ্জ্বিত। তিনি আরো বলেন যে রাস্তা নিয়ে সমস্যা অচিরেই তা সমাধানের জন্য স্থানীয় সংসদ সদস্য মুক্তিযোদ্ধা মেজর জেনারেল (অব) অধ্যাপক ডা. নাসির উদ্দিনের পরামর্শক্রমে এবং উপজেলার চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ ড. মোস্তানিছুর রহমানের সাথে আলোচনা করে জরুরী ভিত্তিতে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।
উল্লেখ্য ২০১৬ সালে উপজেলার এডিবির বরাদ্দে মুক্তিযোদ্ধা রওশন আলীকে দেয়া সরকারি বাড়িতে যাওয়ার জন্য একটি সংযোগ রাস্তার টেন্ডার হয়। সেখানে ইট-বালিও ফেলা হয়। কিন্তু স্থানীয় কতিপয় প্রভাবশালী ব্যক্তির হস্তক্ষেপে সেখানে রাস্তা না করে ইট-বালি উঠিয়ে নিয়ে অন্যত্র রাস্তা করা হয়। সোম ও মঙ্গলবার মুক্তিযোদ্ধা রওশন আলী সেই রাস্তার বিষয়ে জানতে উপজেলা প্রকৌশলীর দপ্তরে গেলে তার সাথে অসৌজন্যমূলক আচরণ করেন উপজেলা প্রকৌশলী আব্দুল মতিন। এ বিষয়ে ওইদিনই স্বাধীনআলো অনলাইন পোর্টালে একটি নিউজ প্রকাশিত হলে বিষয়টি নিয়ে সমালোচনার ঝড় ওঠে।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *